বন্ধুর পথে বন্ধু হয়ে………।

বৃষ্টির টাপুর-টুপুর ঝরে পরা দেখছি বারান্দায় বসে।
ইট-কাঠের কর্মব্যস্ত এই শহরে,
স্বল্প টাকার ছোট্ট একটা পায়রার খোঁপে,
বাস করি আকাশছোঁয়া স্বপ্ন বুকে নিয়ে।
কত কি ভাবি আপন মনে!
শহুরে কোলাহল ছাড়িয়ে বহু দূরের এক গাঁয়ে,একজন মমতাময়ি অধীর অপেক্ষায় থাকেন আমার ফিরে যাবার। সভ্য সমাজের স্বীকৃতি আর জীবনের প্রয়োজনে পড়ে আছি,
ভালোবাসাহীন এই শূন্য শহরে।
পুকুরের স্বচ্ছ জলে অঝোর বর্ষনের ছন্দময় নৃত্য দেখা হয়না অনেকদিন।
এমন অনেক কিছুই করা হয়না প্রানহীন অভিনয়ের এই শহরে।
বন্ধুর জন্য এনে দেওয়া হয়না একবিন্দু সুখ।
তবুও জীবন কেটে যায় জীবনের নিয়মে।
ভালোবাসার আকন্ঠ তৃষ্ঞা সয়ে বেঁচে থাকি।
ভালো থাকার ভান করে যাই সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি।

কবে বলতে পারব আসলেই ভালো আছি?

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।