বন্ধুর জন্য ভালোবাসা..শুভ জন্মদিন প্রিয়তা…

কুয়াশার বৃষ্টি দেখছি…। কীর্তনখোলার কালো জলের উপর টুপটাপ ঝরছে শিশির বৃষ্টি। দূরের আকাশে জেগে আছে ভয়ঙ্কর একাকী একফালি চাঁদ। আমার সাথে তার অতিপ্রাকৃত সংলাপ চলতে থাকে..। ছোটবেলায় খুব মেঘ হতে চাইতাম…। আকাশ ছুঁয়ে দেখার বড়ো বেশি ইচ্ছে হতো। হতে চাইতাম সোনালী ডানার চিল..। মানিক বাবুর কুবের মাঝি হওয়ার বড়ো শখ ছিলো। জীবনানন্দের সাথে দেখতে যেতে চেয়েছিলাম ধানসিঁড়ির তীরে। কিছুই হওয়া হয়নি এই হতভাগ্য আমার। আমি এখনো আমি হয়েই আছি। তোমাদের মতো হতে পারিনি। অনেক বেশি আনস্মার্ট আর এলোমেলো বাউন্ডুলে জীবন প্রতিনিয়ত যাপন করে চলেছি। যাকে নিজের চেয়েও বেশি ভালোবাসি, তাকে কখনো বলা হয়নি, ভালোবাসি..। হয়তো কখনো বলাও হবে না, ভালোবাসি। রাতের পর রাত কেটে যাচ্ছে নির্ঘুম..। অপেক্ষার প্রহর গুনতে গুনতে এখন আমার চারদিকে শুধুই অনিঃশেষ অপেক্ষার পদচারনা। আমার ছাঁয়াই আমার আজন্ম সঙ্গী হয়ে পথ হাঁটছে আমার সাথে। আচ্ছা, বলতে পারো কেউ, ভালোবাসার জন্য কতোটা সৌভাগ্যের প্রয়োজন? ভালোবাসা পাবার জন্য কতোবার পূণর্জন্মের দরকার? ভালোবাসার অঝোর ধারাপাতে কবে ভিজবে আমার তৃষাদীর্ন মন? আমার প্রিয় বন্ধুটি কবে আমায় বলবে, ভালোবাসি তোমাকে…। আজকে আমার প্রিয় মানুষটির জন্মদিন। অনেককটা বসন্ত পূর্বের এই দিনে পৃথিবীতে এসেছিলো বন্ধুটি।

birthday

শুভ জন্মদিন প্রিয়তা..।

তুই কখনো জানবিও না, কেউ একজন তোকে কতোটা ভালোবাসে। ভালোবাসা না পেয়েও ভালোবাসার জন্য অধীর অপেক্ষায় থাকে। একদিন হয়তো সে চলে যাবে দূর থেকে আরো দূরে। সেদিনও সে তোর পাশেই থাকবে হিমেল হাওয়া হয়ে। ফুলের গন্ধ হয়ে জড়িয়ে রাখবে তোকে..। রাতের তারা হয়ে তাকিয়ে থাকবে তোর দিকে..। কুয়াশার চাদর গায়ে নেমে আসবে তোর আঙিনায়। সেদিন তাকে মনে পড়বে তোর?

জানিনা, কখনো আমি পৌঁছতে পারবো কিনা আমার স্বপ্নের পৃথিবীতে..। শুধু জানি, আমি আমার প্রিয়তাকে ভীষণ ভালোবাসি। যে আমার এই নীরব সমর্পনের কথা কখনোই জানবে না। তবুও, ভালো থাকিস বন্ধুপ্রিয়…। আমার সব হাসি- আনন্দের বিনিময়ে। তোর না বলা দুঃখগুলো আমার হয়ে যাক। তোর সব কষ্ট আমায় করে তুলুক নীলকন্ঠ। জেনে রাখিস, আমি আছি..। তোর অপেক্ষায়..।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।