জনাকীর্ণ লোকাল বাস, ফুটপাতের সস্তা তরমুজ এবং একজন নিম্নবিত্তের একটি সকালের গল্প

কবি হাসে টাকা ভাসে গঙ্গা বুড়ির শহরে আসমান তুই কাঁদিস কেন অট্রালিকার পাহাড়ে মিছে হাসি মিছে কান্না পথে পথের আড়ালে গ্রীন সিগনাল রেড ওয়াইন দেয়ালে দেয়ালে এই শহর যাদুর শহর প্রানের শহর ঢাকারে —চিরকুট প্রাণের এই শহরটা বড়ো বেশি দ্রুত পাল্টে যাচ্ছে। যাদুর এই শহরে এখন আর কেউ যাদু দেখায়.

নির্বাসনের প্রাক-কথন এবং আমার ব্লগীয় জন্মদিন…

আমি হয়তো মানুষ নই, মানুষ হলে আকাশ দেখে হাসবো কেন ? মানুষগুলো অন্যরকম, হাত থাকবে, নাক থাকবে, তোমার মতো চোখ থাকবে, নিকেলমাখা কী সুন্দর চোখ থাকবে ভালোবাসার কথা দিলেই কথা রাখবে । বাবাকে আমি ভীষণ পছন্দ করতাম। ছোটবেলায় বাবা বলেছিলেন, আরে ধূর..! কাছে আসবি না তো! তোকে না বলেছি, সবসময়.

একজন স্ট্রীট ম্যাজিশিয়ান ও রূপকথার জাদুকরের গল্প

জনারণ্যে খুঁজে ফিরি আপনার স্বজন…পথ-লিপি – ২ ”দেহেন ভাই, আমার হাতে কয়ডা কার্ড? তিনডা? আমি দেখতাছি চাইরডা। বাইর কইরা দেহান তো…” এভাবেই ঢাকার নগরকর্তার বাড়ির সামনে, ওসমানী উদ্যানের লাগোয়া ফুটপাথের অনাড়ম্বর আর ধুলোমলিন স্টেজে ম্যাজিক দেখাচ্ছিলেন আমার শৈশবের স্বপ্নের জাদুকর হ্যারি হুডিনী। অবাক হলেন তো? অবাক হবারই কথা। বিশ্বের খ্যাতনামা ম্যাজিশিয়ান.

ভালোবাসার ধারাজল আর আমার প্রাত্যহিকতা

ভালোবাসা আমার কাছে ভীষণ রকমের মূল্যবান। ছোটবেলা থেকে ভালোবাসাশূন্য পরিবেশে বেড়ে উঠেছি বলেই হয়তো জানি, ভালোবাসা ঠিক কতোটা দামী। অনেক চেষ্টা করি প্রতিক্ষণ, যাতে আমার প্রতি যারা ভালোবাসা জমিয়ে রাখে বিভিন্ন সময় আর বিভিন্ন আকারে, তাদের জন্য কিছু করার। কিছু করতে না পারলেও ইচ্ছে রাখি কখনো সুযোগ পেলে তাদের পাশে.

অজানা বন্দরে জমাও পাঁড়ি..

ব্যক্তিমানুষের সীমাহীন ক্ল্পনার মাত্রা ছাড়িয়ে যাওয়া বিপুলায়তন মহাবিশ্বের একমাত্র সবুজ এবং প্রাণের উপস্থিতি এই গ্রহেই। অসংখ্য জীবের বসবাস এখানে। বহুকাল ধরে হাজারো সূর্যের উদয়াস্ত দেখতে দেখতে, ক্রমাগত বাড়ছে পৃথিবীর বয়স। অগনিত মানুষ আর জাতিসত্ত্বার উত্থান, পতন, লয়, সবই সে দেখে চলেছে নীরবে নিভৃতে। কারো আগমন হয় খুবই সাধারণ। আবার, কারোটা.